রাজ্য

‘পুলিশ নিজেই চেয়েছিল গাড়িতে আগুন জ্বলুক, পুলিশ সে সময় আটকাল না কেন’, নবান্ন অভিযান নিয়ে পুলিশকে দুষলেন দিলীপ

গতকাল, মঙ্গলবার বিজেপির নবান্ন অভিযানকে (Nabanna Abhiyam) ঘিরে কার্যত রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছিল হাওড়া ও কলকাতার বিস্তীর্ণ অংশ। এমজি রোডে পুলিশের গাড়িতে আগুন ধরানো হয়। এই ঘটনা নিয়ে পুলিশকেই (Police) দায়ী করলেন হন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)।। তাঁর দাবী, ‘পুলিশ নিজেই চেয়েছিল যে গাড়ি জ্বলুক’।  

প্রায় প্রতিদিনই প্রাতঃভ্রমণে বের হন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর সেখানেই নানান বিষয় নিয়ে মন্তব্যও করেন তিনি। এদিনও এর অন্যথা হল না। আজ, বুধবার প্রাতঃভ্রমণে বেরোলে নবান্ন অভিযানে বিজেপির প্রতিবাদ ও কলকাতায় পুলিশের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন করা হয় দিলীপকে। এই প্রশ্নের উত্তরে পালটা পুলিশকেই দুষলেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, “পুলিশই চেয়েছে গাড়িতে আগুন জ্বলুক”।

তাঁর ব্যাখ্যা, “যেখানে গাড়িতে আগুন জ্বলল, সেখানে কোনও পুলিশ ছিল না কেন? গাড়িতে কোনও চালকও ছিল না। আর যদি পুলিশ দেখে থাকে বিজেপি করেছে, আটকানো হল না কেন? গ্রেফতার করা হল না কেন”? আকারে ইঙ্গিতে দিলীপ ঘোষ এমনটাই দাবী করলেন যে এই অগ্নিসংযোগের সঙ্গে বিজেপির কোনও যোগ নেই। এর দায় পুলিশেরই।

বিজেপি সাংসদের এহেন মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেন তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন। তিনি বলেন, “বিজেপির গুণ্ডামি গতকাল রাজ্যবাসী দেখে নিয়েছেন। ওদের আর কিছু না বলাই ভালো”।

উল্লেখ্য, গতকাল, মঙ্গলবার বিজেপির নবান্ন অভিযানে রাজ্যের নানান প্রান্ত থেকে যোগ দিয়েছিলেন বিজেপি কর্মী-সমর্থক। পূর্ব পরিকল্পনা মতোই তিনদিক থেকে বের হয় মিছিল। মিছিলের নেতৃত্ব দেন দিলীপ ঘোষ, শুভেন্দু অধিকারী, সুকান্ত মজুমদাররা। এই অভিযানকে সফল করতে রাস্তায় নামেন নানা জেলা থেকে আগত বিজেপি কর্মীরা।

এই অভিযানকে ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে হাওড়া-কলকাতার একাংশ। মিছিলে বাধা দেয় পুলিশ।, রাস্তা খুঁড়ে গার্ডরেল বসিয়ে মিছিল আটকানোর চেষ্টা করে পুলিশ। এর জেরে পুলিশের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধে জড়ান বিজেপি নেতা-কর্মীরা। এদিন পুলিশ সর্বশক্তি দিয়ে আটকানোর চেষ্টা করে বিজেপিকে। ছোঁড়া হয় জলকামান, কাঁদানে গ্যাসের শেল। গ্রেফতার হন শুভেন্দু অধিকারী, সুকান্ত মজুমদার, লকেট চট্টোপাধ্যায়-সহ আরও অনেক বিজেপি কর্মীরাও। এদিকে কলকাতায় পুলিশের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

Back to top button
%d bloggers like this: