রাজ্য

আমেরিকা-রাশিয়ার খুনোখুনি! পুতিনকে খুনি বলে দাগলেন বাইডেন, পেলেন পাল্টা জবাব

রীতিমতো উত্তেজনার আবহ রাশিয়া-আমেরিকায়। মার্কিন মসনদে পালাবদল হ‌ওয়ার পরই নিম্নমুখী আমেরিকা-রাশিয়ার সম্পর্ক।

সম্প্রতি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সরাসরি ‘খুনি’ বলে দেগে বসেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তারই পাল্টা জবাব ‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌ দিলেন এদিন পুতিন। সপাট জবাব, “এক জন খুনিই পারে আর এক খুনিকে চিনে নিতে।”

 

সঙ্গত, গত বুধবার রাতে এক বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমে একটি সাক্ষাৎকার দেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন। সেখানে রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনিকে বিষ প্রয়োগ করে খুনের চেষ্টার প্রসঙ্গে তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়, “পুতিন সম্পর্কে আপনার ধারণাটা ঠিক কী? আপনার কি মনে হয় তিনি এক জন খুনি?’’ কালবিলম্ব না করে বাইডেন উত্তর দেন, “আমি তা-ই মনে করি।” বাইডেনের মন্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছে মস্কো। ওয়াশিংটনকে একহাত নিয়ে পুতিন বলেন, “আমেরিকার রেড ইন্ডিয়ানদের হত্যা করেই সে দেশে উপনিবেশ গড়া হয়েছিল। তাছাড়া, সে দেশে ব্লেক লাইভ ম্যাটারস আন্দোলন হয়।” এই প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, ‘‘ইতিহাসে কখনও এ রকম হয়নি। প্রেসিডেন্ট বাইডেনের মন্তব্য অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ এবং এটা স্পষ্ট হয়ে গেল যে, তিনি আমাদের সঙ্গে সম্পর্ক ভাল করতে আগ্রহী নন। আমরাও এ বার তাই হলে সেই পথেই হাঁটব।”

আরও পড়ুন – জায়গা বদল! সরলেন পায়েল, ঢুকলেন শোভন, নজরে বেহালা পূর্ব

উল্লেখ্য, বর্তমান উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে ওয়াশিংটনে অবস্থিত রুশ দূতাবাস থেকে দেশে ফেরত আসতে বলা হয়েছে রাষ্ট্রদূত আনাতলি আনতোনভকে। রাশিয়ার বিদেশ মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ওই রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনা করা হবে পরিস্থিতি নিয়ে। এদিকে মঙ্গলবারই বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গিয়েছিল, দ্রুত মস্কোর উপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার কথা ভাবছে আমেরিকা।

Back to top button
%d