কলকাতা

WB Election 2021: তৃণমূলের শেখানো বুলি না বললে মন্ত্রিত্ব যাবে, ব্রাত্য বসু শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে ব্যর্থ, তীব্র কটাক্ষ অনুপমের

সামনেই বিধানসভা নির্বাচন। কিছুদিনের মধ্যে ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনের আগে শাসকদলের নানান দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরব হয়েছে গেরুয়া শিবির। বিজেপির ‘আর নয় অন্যায়’-এর মতোই অন্য একটি কর্মসূচী হল ‘শিক্ষা বাঁচাও’ কর্মসূচী।

শিক্ষক ও পার্শ্বশিক্ষকদের পাশে দাঁড়াতে নতুন এই ‘শিক্ষা বাঁচাও’ কর্মসূচীর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বিজেপির পক্ষ থেকে। আজ, শুক্রবার এই কর্মসূচী উদ্দেশ্যে মিছিল শুরু হয় কলেজ স্কোয়ার থেকে। এই মিছিল যাবে ধর্মতলা পর্যন্ত। এই মিছিলে অংশ নিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, অনুপম হাজরা, সৌমিত্র খাঁ, প্রমুখ বিজেপি নেতা।

আরও পড়ুন- WB Election 2021: গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েই অমিত শাহ্’র সঙ্গে সাক্ষাৎ যশ দাশগুপ্তের, হল রুদ্ধদ্বার বৈঠক

এই কর্মসূচীতে ব্রাত্য বসুর গুজরাতের শিক্ষকদের পেনশন না পাওয়ার অভিযোগের প্রেক্ষিতে অনুপম হাজরা বলেন, “ব্রাত্য বসু নিজে একসময় নিজে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু তিনি শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছেন বলে তাঁকে সেই পদ থেকে সরানো হয়। মানব উন্নয়ন সূচক লক্ষ্য করলে দেখা যাবে অন্যান্য বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির শিক্ষাগত পরিকাঠামো পশ্চিমবঙ্গের থেকে অনেক এগিয়ে”।

তিনি এও বলেন যে ব্রাত্য বসু নিজে যেহেতু শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন তাই তিনি খুব ভালো করে জানেন রাজ্যে শিক্ষাব্যবস্থার কী শোচনীয় অবস্থা। তাই অনুপমের দাবী যে সবদিক দেখে পরিসংখ্যান বিচার করেই ব্রাত্য বসুর কোনও মন্তব্য করা উচিত। এরপর শাসকদলকে দেগে তিনি বলেন যে তৃণমূল তো এনজিও-র চাকরির মতো। তাদের কথায় না চললে পরদিন মন্ত্রিত্ব যেতে পারে। তাই ব্রাত্য বসুর মুখে এই কথা মানায় না বলেই মনে করেন অনুপম হাজরা।

আরও পড়ুন- WB Election 2021: নিরাপত্তা এবার হবে আরও কড়া! আগামী সপ্তাহের মধ্যেই রাজ্যে মোতায়েন করা হবে কেন্দ্রীয় বাহিনী

এদিনের এই মিছিলে ছিলেন সদ্য বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তৃণমূল সরকারকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, “সবসময় শুধু কেন্দ্রকে দোষ দেন, কেন্দ্রের সঙ্গে নেত্রী কোনও সমঝোতা করেন না। আগে নিজের রাজ্য দেখুন। তারপর অন্য রাজ্যে কী হচ্ছে না হচ্ছে, লোককে জানাবেন”।

Back to top button
%d bloggers like this: